Home / অন্যান্য / মৃৎ শিল্প

মৃৎ শিল্প

IMG_0564

মাটি আর মানুষ আমাদের বড় সম্পদ। এ সত্যের প্রকাশ ঘটেছে টাঙ্গাইলের মৃৎশিল্পে। টাঙ্গাইলের এঁটেল মাটির তৈজসপত্র দ্রব্যাধার পুতুল ও দেবদেবীর বিগ্রহ দেখতে সুন্দর, কাজে টেকসই। গবাদি পশুর সম্মুখে যে পাত্রে খাওয়া দেওয়া হয় তার নাম চাড়ি। টাঙ্গাইলের বিভিন্ন স্থানে এটি তৈরি হয়। এছাড়া মটকি বা কোলা বা বিশাল বপু পাতিল তৈরি হয় টাঙ্গাইলের বিভিন্ন কুমার পাড়ায়। পোড়া মাটির টালি এক সময় এখান থেকে গোটা ময়মনসিংহ জেলায় চাহিদা মেটাত। ফুলের টব ও পাতা-কুয়ার মাটির পাট তৈরিতেও টাঙ্গাইলের কুমার সম্প্রদায় সুদক্ষ। গোপালপুর থানার সূতী, ডুবাইল, বাগুয়াটা, কালিহাতীর বল্লা, টাঙ্গাইল সদরের করটিয়া, গালা, মির্জাপুরের জামুর্কী, মধুপুরের ধনবাড়ীসহ বিভিন্ন স্থানের কুমররা আজো শিল্প নৈপুণ্যের পরিচয় দিয়ে আসছে। মাটির তৈজসপত্র, সানকি, হাড়ি, সরা, বাটি, পিঠা তৈরির ছিদ্রযুক্ত পাতিল। দইয়ের ঠিলা, কোলা, গুড়ের মটকি প্রভৃতি টাঙ্গাইলের কুমারদের অনবদ্য সৃষ্টি। এসব মাটির জিনিসপত্র সাধারণত বিভিন্ন হাট-বাজার ও মেলায় বিক্রি হয়। ফেরি করেও বিক্রি করা হয়। টাঙ্গাইলের কুমারদের মধ্যে অনেকে প্রতিমা নির্মাণে সিদ্ধহস্ত। এছাড়া ঘোড়া, গরু, বাঘ, হাতি, কুকুর, মাছ, আম, কাঁঠালসহ নানা ধরণের খেলনা শিশুদের মনোরঞ্জন করতে সক্ষম হয়। টাঙ্গাইলের এই শিল্পের উন্নয়নে আজো কিছু করা হয়নি। আদিমকালের সাজ সরঞ্জাম দিয়ে কুমাররা এখনো কাজ করে যাচ্ছেন।

About টাঙ্গাইল ইনফো

Check Also

অ্যাপলের সিইও টিম কুক এখন ভারতে

অ্যাপল কম্পিউটার ইনকরপোরেটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) টিম কুক ছিলেন চীনে। দেশটির এক নতুন ব্যবসায় …