Home / ব্যক্তিত্ত্ব / ডঃ এমএনহুদা

ডঃ এমএনহুদা

ডঃ এমএনহুদাঃ এই পন্ডিত ব্যক্তি (১৯১৯) সালে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে টাঙ্গাইল থানার অন্তর্গত (বর্তমানে দেলদুয়ার থানা) জাঙ্গালিয়ার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতার নাম মৌলভী মির্জা আব্দুল করিম। টাঙ্গাইল বিন্দুবাসিনী হাই স্কুল থেকে ক্লাসের ফার্স্টবয় হিসাবে চারটা লেটার ও স্টার পেয়ে দশ টাকা করে মাসিক বৃত্তি পেয়ে ১৯৩৫ সালে মেট্রিক পাশ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৪০ সালে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হয়ে অনার্স পাশ করেন। তিনি ঐ বছর অনুষ্ঠিত সর্ববিষয়ে অনার্স গ্র্যাজুয়েটদের মধ্যে প্রথম হওয়াতে তৎকালীন দুর্লভ বৃত্তি রাজা কালিনারায়ন স্কলারশীপে ভূষিত হন। তিনি প্রথম মুসলিম ছাত্র, যিনি এই দুর্লভ কৃতিত্বের অধিকারী হন। অতঃপর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে এমএ পরীক্ষায় ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হন। মরহুম তমিজ উদ্দিন খান কলিকাতাতে প্রাদেশিক মন্ত্রী ছিলেন। তমিজ উদ্দিন খানের দ্বিতীয় কন্যা কুলসুমের সঙ্গে তিনি ঐ সময় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ২৬.০১.১৯৪৫ সালে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে চাকুরি শুরু করেন। ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেটের চাকুরিকালীন অবস্থাতেই যুক্তরাষ্ট্র সরকার ভারতীয়দের জন্য বেশ কিছু ওভারসীজ বৃত্তির ঘোষণা পত্রিকা মাধ্যমে প্রচার করেন। ডঃ এমএন হুদার বৃত্তির জন্য দরখান্ত করেন এবং নির্বাচিতও হন। ওভারসীজ স্কলারশীপ নিয়ে ডঃ এমএন হুদা ১৯৪৭ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৪৯ সালে সেপ্টেম্বর মাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইকোনোমিকসের রিডার হিসাবে যোগদান করেন। ডঃ হুদা ১৯৬৫ সালে পূর্ব পাকিস্তানের অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রী হিসাবে যোগদান করেন এবং তিনি এই পদে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত অধিষ্ঠিত ছিলেন। এরপর ১৯৬৯ সালের ৩ মার্চ পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর পদে নিযুক্ত হয়ে শপথ গ্রহণ করেন। কিন্তু ২৫ মার্চ দ্বিতীয় সামরিক অভ্যুত্থানে জেনালে ইয়াহিয়া খান পাকিস্তানের ক্ষমতা গ্রহণ করেন এবং ডঃ হুদার গভর্নরের কার্যকাল শেষ হয়ে যায়। ডঃ হুদা তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির অধ্যাপক পদে চলে যান। ১৯৭৫-এর ২৬ নভেম্বরের পূর্ব পর্যন্ত তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপনার সাথে যুক্ত থাকেন, অতঃপর প্রেসিডেন্ট সায়েম তাকে প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা হিসাবে নিয়োগ করে পরিকল্পনা বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব ছাড়াও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কিছু দায়িত্বও অর্পণ করেন। রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আমলে তিনি মন্ত্রী, উপদেষ্টা ও প্রেসিডেন্ট সাত্তারের আমলে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ১৯৯১ সালের ২২ ডিসেম্বর তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

About Ashiq Mahmud

Check Also

শামছুল হক

শামছুল হক: ১লা ফেব্রুয়ারি ১৯১৮ সালে বর্তমান টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার উপজেলার এলাসিন ইউনিয়নের শাকইজোড়া গ্রামের …