Home / হালচাল / শীতের পোশাক

শীতের পোশাক

winter clothআপনার শহরে কেমন পড়ছে, সেই কথা মাথায় রেখেই শীতের পোশাক কিনুন৷ তাতে ভালো ভাবে ব্যবহারও করা যাবে৷ আবার অর্থেরও খানিক সাশ্রয় হবে৷ শীতের পোশাক কেনার সময় কোন কোন বিষয় মাথায় রাখা উচিৎ হাড় কাঁপানো শীত পড়তে এই শহরে এখনও কিছুটা দেরি আছে৷ তবে প্রকৃতির মতিগতির তো ঠিক নেই৷ ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহও বটে৷ দেখা গেলো আর কয়েক দিনের মধ্যেই জমিয়ে ঠাণ্ডা পড়ে গেলো৷ তাই দেরি না করে শীত পোশাকের কেনাকাটার প্ল্যান শুরু করে দিন৷

কিন্তু প্রশ্ন হলো কী ধরনের উইন্টার ওয়্যার কিনবেন? যে কোনও কেনাকাটা করার আগেই একটু পরিকল্পনা করে নেওয়া দরকার৷ তাতে আগে থেকেই আপনার প্রয়োজন গুলো মাথায় থাকে৷ ফলে অপ্রয়োজনীয় জিনিষ কিনে আর্থিক অপচয়ের তেমন সুযোগ থাকে না৷ আর তেমন ভাবে দেখতে গেলে আমাদের শহরে হাতে গোনা কয়েকদিন-ই যা একটু শীত পড়ে৷ বেশির ভাগ সময়েই হালকা শীতের পরিবেশই থাকে৷ তাই শীতের শপিং সেই ভাবেই করুন৷ তবে আপনি যদি এই সময়ে কোনও শীতের দেশে বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যান করেন, তাহলে কিন্ত্ত আপনাকে তার উপযুক্ত শীত পোশাকই কিনতে হবে৷

তবে যাই কিনুন ভালো থার্মাল ওয়্যার কিনতে ভুলবেন না৷ হালকা বা হাড় কাঁপানো শীত যেমনই পড়ুক, থার্মাল খুব কাজে লাগে৷ হালকা শীতের জন্য কিনতে পারেন একটু মোটা জার্সি মেটেরিয়ালের হুডেড জ্যাকেট৷ এখন হালকা শীতের জন্যও উলেন ওয়্যার বা লেদার ওয়্যার পাওয়া যায়৷ হালকা শীতের জন্য কিছু মোটা ফ্যাব্রিকের ফুল স্লিভ ভেস্ট বা টি শার্ট কিনতে পারেন৷ দিনের বেলার জন্য কাজে লাগতে পারে৷ স্টোল বা স্কার্ফ হালকা শীতের জন্য খুব কাজে লাগে৷ উলেন স্কার্ফ বা একটু মোটা সিল্কের স্কার্ফ বা স্টোল কিনতে পারেন৷ বেশি ঠাণ্ডার জন্য ভারী কোনও শীত পোশাক কিনুন৷ লঙ ট্রেঞ্চ কোট বা ভারী জ্যাকেট কিনুন৷ ফারের শীত পোশাক কিনতে পারেন৷ তাছাড়া শীতের উপযুক্ত নানা ধরনের টুপিও কেনা যেতে পারে৷ এবং শীত কালে যে জিনিসটা সবচেয়ে কাজে লাগে, তা হলো মোজা৷ বাড়িতে থাকি বা বাইরে, মোজা এই সময়ে সব সময় আমাদের সঙ্গী৷ বেশ কয়েক জোড়া মোজা কিনে নিতে পারেন৷

যে ধরনের শীতের পোশাকই কিনুন না কেন, দাম সম্পর্কে একটা আইডিয়া থাকাটা মাস্ট৷ শীতের শুরুতে অনেক শপিং মল বা রিটেইল স্টোর উইন্টার ওয়্যারের উপর সেল দেয়৷ এই সময় কেনাকাটা করতে পারেন৷ তাতে অনেকটাই আর্থিক সাশ্রয় হয়৷ তবে শীতের পোশাক কেনার সময়, একটু ভালো ব্র্যান্ডের শীতের পোশাক কিনুন৷ অনেকদিন পর্যন্ত ভালো থাকে৷ অনলাইন রিটেইল স্টোর থেকেও শীতের পোশাক কেনাই যেতে পারে৷ শীতকালে থার্মাল কেনাটা খুব জরুরি৷ ভালো ব্র্যান্ডের থার্মাল ভেস্ট, লেগিংস বা প্যান্ট যাই কিনুন না কেন, অন্তত ৫০০ টাকার মতো বাজেট রাখুন৷ তবে শীত পোশাকের দাম অনেকটাই ব্র্যান্ডের উপর নির্ভর করছে৷ হাজার থেকে তিন হাজারের মধ্যে হালকা শীতের জন্য উপযুক্ত শীত পোশাক পেয়ে যাবেন৷ ট্রেঞ্চ কোট কিনতে হলে অবশ্য প্রায় পাঁচ হাজার টাকার মতো বাজেট রাখতে হবে৷ তার বেশিও পরতে পারে৷ কারণ ট্রেঞ্চ কোট নানা ধরনের হয়৷ লেদারের ট্রেঞ্চ কোটের ফারের ট্রেঞ্চ কোটের দামের মধ্যে ফারাক আছে বৈকি৷ উৎসবে অনুষ্ঠানে শাল তো লাগবেই৷ কাশ্মীরী শালের জন্য হাজার থেকে তিন হাজার টাকার মতো বাজেট রাখা যেতে পারে৷ হ্যান্ডলুমের শাল হলে ৫০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে বাজেট রাখুন৷ উলেন স্টোল বা স্কার্ফের দাম পড়বে আড়াই হাজার টাকার মধ্যে৷ সিল্কের স্টোল সাধারণত হাজার টাকার মধ্যেই পাবেন৷ তবে স্টোলের কাজ, প্রিন্টের ধরন, এমব্রয়ডারি ইত্যাদির উপরেও দাম নির্ভর করে৷ এক্ষেত্রে দামের সীমারেখা হাজার পেরিয়ে যাবে৷ স্কার্ফের দামও একই রকম ধরে রাখুন৷ উলের টুপির দাম ৫০০ থেকে ১৫০০-এর মধ্যেই পড়বে৷ পশমের মোজার দাম শুরু হচ্ছে চারশো টাকা থেকে৷ অনলাইনে যদি মোজা কিনতে চান তা হলে কম্বো প্যাক কিনুন৷ তাতে টাকার সাশ্রয় হয়৷ অন্যান্য রিটেইল স্টোরেও কম্বো প্যাকে মোজা পাওয়া যায়৷

সংগৃহিত

About Ashiq Mahmud

Check Also

চুলের সাজ

মিউনিস ব্রাইডালের প্রধান রূপ বিশেষজ্ঞ তানজিমা শারমিনের মতে, স্টাইল এক হলেও বিভিন্ন ধরনের চুলে একই …