Home / মনের জানালা / কিউট বউ

কিউট বউ

cute wifeআমার বউটা এত কিউট কেন? যখন এই প্রশ্ন করি তখন বউ রাগ করে উত্তর দেয়, আমার ম্যাজাজ খারাপ করবানা বলে দিচ্ছি! ঠিক এই মুহূর্তে ওকে আরো কিউট লাগে। কী কিউট করে মেজাজকে ম্যাজাজ বলে! আমি তখন আরো রাগানোর জন্য বলি, ইস কত্ত কত্ত কিউট! ও তখন আরো রেগে মেগে চিৎকার করে বলে, বলছি না ম্যাজাজ খারাপ করবানা তাহলে কিন্তু র‌্যাজাল্ট ভাল হবেনা।
tongue emoticon

আমার বউটা সত্যিই অনেক কিউট। সবচেয়ে বেশি কিউট যখন ও ঘুমায়। বিষয়টা এমন না যে ও সারাদিন বকবক করে বলে বলছি ঘুমের সময় বেশি কিউট (ও খুবই কম কথা বলে)।
tongue emoticon
বিষয়টা সত্যিই ও ঘুমের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কিউট। দুই হাত ৪৫ ডিগ্রী বাঁকা করে হাতের আঙ্গুলের উপর মাথা রেখে কাত হয়ে ঘুমায়। আর পা দুইটাও থাকে সেইম কৌণিক প্যাটার্নে। সামনের চুলগুলো চোখের উপর এসে পড়ে। উফ! আমার দেখা অন্যতম সেরা দৃশ্য।

আমার বউ কিউট করে হাটেঁ। এত ধীর গতির হাঁটাও যে এত সুন্দর হইতে পারে তা আমার জানা ছিলনা। আমি খুব দ্রুত হাঁটতাম। কিন্তু ওর কিউট করে হাঁটাটা দেখার জন্যই ওর সাথে তাল মিলায়া হাটিঁ। আহ্- জীবন হয় সুন্দর!

বউয়ের অনেক কিউট বিষয়ের মধ্যে বেশি কিউট হইলো চুল। যখন বাতাসে বউয়ের চুল উড়ে এসে আমার চোখ মুখ ঢেকে দেয় তখন মনে হয় চোখ দুটো বন্ধ করে শুধু ঘ্রাণ নেই আর মনে হয় এই চুলের স্পর্শ পাবার জন্যই আরো একশো বছর বাচিঁ।
বউ কপালে টিপ পরলে তাকে দেবী দেবী লাগে। মনে হয় দেবী রুপে সাক্ষাৎ হেমামালিনী বসে আছে আমার সামনে। নিজের অজান্তেই বলে ফেলি, উফ! এত অসহ্য সুন্দর কেন?
শি ইজ টোটালি এ্যা কিউটের ডিব্বা। আর কিছু বলবোনা। ব্যাচেলর সমাজ এমনিতেই ক্ষেপে আছে। কখন জানি অনশন শুরু করে। তবে বিয়ের আগে যারা হেনতেন বুঝায়া ভয় দেখাইছিল তারা নিন্দুক। এসব নিন্দুকেরা নিপাত যাক। বিয়ে করে আমার উপলব্ধি, পুরুষ মানুষ দুই প্রকার- জীবিত আর অবিবাহিত! “D
দেখ ব্যাচেলর সমাজ, এই স্ট্যাটাসে উল্টা পাল্টা কমেন্ট করে আমার ম্যাজাজ খারাপ করিস না, র‌্যাজাল্ট ভাল হবেনা বলে দিচ্ছি।

লিখা – Apel Mahmud

About Aurthohin

Check Also

ভাত, কাপড়, ভালবাসা

( ভুমিকায় বলে নেই, গল্পের বক্তা চরিত্রটির মত আমিও নারীবাদি নই।আমি মানি নিয়তি নারী পুরুষ …